mango

কাঁচা আমের স্বাস্থ্য উপকারিতা

Read Time:4 Minute, 34 Second

আম মৌসুমি ফল হলেও, এখন সারাবছরই দেখা মেলে। নানা বারোমাসি আমের জাত আবিষ্কারের ফলে। তবে আম গ্রীষ্মকালেই বেশি পাওয়া যায়। আর, কাঁচা আম দিয়ে নানা পদের মুখরোচক খাবার তৈরি করা যায়।

এ ছাড়া কাচা আম, মরিচ, লবণ ও কাসুন্দি দিয়ে মেখে খাওয়ার মজাই আলাদা।

কাঁচা আম খেতে কিছুটা টক হলেও, পাকা আম খেতে সরস ও মিষ্টি। অনেকের দাবি, আমকে জাতীয় ফল করবার।

কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না, আম জাতীয় ফল না-হলেও, আম গাছ কিন্তু ঠিকই বাংলাদেশের জাতীয় গাছের মর্যাদা পেয়েছে।

কাঁচা আমের উপকারিতা

১. কাঁচা আম খেলে শরীরের অতিরিক্ত ক্ষতিকর পানি থেকে দেহকে রক্ষা করে এবং শরীরের তৃষ্ণা মেটায়।

এ ছাড়া কাঁচা আম উচ্চ তাপমাত্রার নেতিবাচক প্রভাব থেকে আমাদের রক্ষা করে।

২. গ্রীষ্মকালে কাঁচা আমের জুস শরীরে ঘামের কারণে তৈরি সোডিয়াম ক্লোরাইড এবং লোহার অত্যধিক ক্ষতি রোধ করে।

৩. শুকনো আম পাউডারকে বলা হয় ‘আমচুর’। এটি স্কার্ভি চিকিৎসায় অত্যন্ত উপকারী, বিশেষ করে ভিটামিন সি-র অভাব দূর করে।

৪. কাঁচা আম পেক্টিন (pectin) সমৃদ্ধশালী একটি উৎস; মধু এবং লবণ দিয়ে মিশিয়ে গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল রোগের চিকিৎসা অত্যন্ত উপকারী।

এটি গ্রীষ্মকালীন ডায়রিয়া, আমাশয়, পাইলস, দীর্ঘস্থায়ী এঁড়ে, বদহজম এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোগের জন্য ওষুধ হিসেবে খুব কার্যকর হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

৫. কাঁচা আম এর উচ্চ ভিটামিন সি রক্তনালীসমূহের স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি করে এবং নতুন রক্ত কোষ গঠনে সাহায্য করে।

এটি যক্ষ্মা, রক্তস্বল্পতা, কলেরা এবং অতিসার রোগের বিরুদ্ধে শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৬. কাঁচা আমের সঙ্গে চিনি, জিরা এবং এক চিমটি লবণ মিশিয়ে সেদ্ধ করে জুস করে খেলে ঘামাচি রোধ করতে সাহায্য করে এবং গ্রীষ্মকালে স্ট্রোকের ঝুঁকি হতে রক্ষা করে।

৭. এটি যকৃতের রোগ চিকিৎসায় সাহায্য করে, পিত্ত অ্যাসিড কমায় এবং ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ হতে লিভারকে রক্ষা করে।

৮. কাঁচা আমে পাকা আমের তুলনায় অধিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি আছে।

এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যান্সার এবং কার্ডিওভাসকুলার রোগের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে শরীরকে রক্ষা করে।

৯. কাঁচা আম মর্নিং সিকনেস চিকিৎসার সহায়ক।

১০. ভিটামিন সি-র অন্যতম উৎস কাঁচা আম এবং সি মানুষের মনোবল উন্নত করে ও রোগের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে সাহায্য করে।

১১. এ ছাড়া কাঁচা আম একটি ক্ষারীয় খাদ্য হিসাবে অম্লতা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

ডেস্ক শুভ কৃষি

…………………

[সুপ্রিয় পাঠক, আপনিও শুভ কৃষি’র অংশ হয়ে উঠুন। কৃষি সম্পর্কিত দেশে-বিদেশের জানা-অজানা নানা বিষয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট ছবিসহ মেইল করুন : krishibdagriculture@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, সংশ্লিষ্ট-ছবি পাওয়া না গেলে সমস্যা নেই। আমরা সংগ্রহ করে প্রকাশ করব। আর, আপনি নিজের নামে লেখা প্রকাশ করতে না-চাইলে, ছদ্মনামে অথবা সংগ্রহ হিসেবে প্রকাশ করা যাবে।

আমরা চাই—আপনার অংশগ্রহণ আনন্দপূর্ণ ও বন্ধুত্বের স্মারকে পরিণত হয়ে উঠুক। শুভ কামনা…]

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleppy
Sleppy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *